কুমিল্লায় মায়ের সামনে হিন্দু যুবকের উপর নির্যাতন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় মায়ের সামনে গ্রাম্য মাতাব্বরের হাতে হিন্দু যুবকের উপর অমানুষিক নির্যাতনের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এ ঘটনায় চারদিকে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

বুধবার (২৫ ডিসেম্বর) বিকেলে মুরাদনগর উপজেলার দারোরা ইউনিয়নের কাজিয়াতল পূর্বপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার সনাতন ধর্মালম্বী ওই ছেলেটি কাজিয়াতল গ্রামের রাখাল চন্দ্রের ছেলে রাজু চন্দ্র।অপরদিকে নির্যাতনকারী ওই মাতাব্বর আবু তাহের কন্টাক্টর দারোরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও দারোরা ইউনিয়ন ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের বর্তমান আমির, দুই দলেরই ইউনিয়ন কমিটিতে পোষ্ট রয়েছে তার।

জানা যায়, গত বুধবার বিকেলে কোন কারণ ছাড়াই হাত পা বেধে অমানুষিক নির্যাতন করেন আবু তাহের কন্টাকটার। কোন প্রকার প্রতিবাদে কাজ না হওয়ায় সেই দৃশ্য সামনাসামনি দাড়িয়ে কাতর হয়ে দেখছেন মা। ওই ঘটনাটি উপস্থিত কেউ মোবাইলে ধরণ করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়।

ওই ভিডিওতে দেখা যায়, একজন হিন্দু যুবককে জামা কাপড় খুলে হাত পা বেধেঁ প্রচন্ড শীতের মধ্য পা দিয়ে মুখে ও বুকে লাথি মেরে ছুড়ে ফেলে অজ্ঞান করা হচ্ছে। এরপর আহত ও ক্রন্দনরত যুবকটিকে টানা কয়েকদফা লাথি মারতে থাকেন ওই সর্দার।

হিন্দু যুবকের প্রতি এমন হিংস্র আচরণে এলাকায় সমালোচনার ঝড় বইছে। ওই যুবকের পরিবার এ অমানবিক আচরনের বিচার চেয়ে অন্য সর্দার ও মাতাব্বরদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে এখন ক্লান্ত প্রায়। যুবকটির মা ও তার পরিবার এ অমানবিকতার বিচার চেয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এবিষয়ে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মনজুর আলম বলেন, এ ঘটনায় এখনো থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে অব্যশ্যই যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

২ Replies to “কুমিল্লায় মায়ের সামনে হিন্দু যুবকের উপর নির্যাতন”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *