কমলগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সাহায্যের তালিকায় অনিয়ম,সাহায্য পেল ২৩৭ পায়নি প্রায় নয় হাজার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অঞ্জন প্রসাদ রায় চৌধুরী,কমলগঞ্জ প্রতিনিধি :-

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে করোনাকালীন দুর্যোগের কারনে অসহায় কর্মহীনদের প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত মানবিক নগদ অর্থ সাহায়তার তালিকা প্রণয়নে একটি পৌরসভা ও ৯টি ইউনিয়নে অনিয়মের চিত্র পাওয়া গেছে।

এক্ষেত্রে পেশা বদল করে তালিকাভুক্ত করা ব্যবসায়ী, প্রবাসী, চাকুরিজীবি ও জনপ্রতিনিধিদের তালিকায় জাতীয় পরিচয়পত্রের সাথে মুঠোফোন নম্বরের ছিল ব্যাপক অনিয়ম। 

স্থানীয়ভাবে এ নিয়ে অভিযোগ উঠলে জনপ্রতিনিধিরা তৈরী করা তালিকা আবার সংশোধন করে দিলে জাতীয় পরিচয়পত্রের সাথে মিল থাকা সঠিক মুঠোফোন নম্বর থাকায় এ পর্যন্ত কমলগঞ্জের ২৩৭ জন প্রধানমন্ত্রীন মানবিক সাহায্যের ২৫০০ টাকা করে  গ্রহন করেছেন।

বাকি ত্রুটিযুক্ত ৮ হাজার ৭৬৩টি মুঠোফোন নম্বর সংশোধন করে দ্রুত প্রেরণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তৈরীকৃত তালিকা উপজেলা প্রকল্প অফিসে জমা করার পর খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে অতি দরিদ্রদের নাম না দিয়ে  বিভিন্ন ইউনিয়নে কাপড়ের ব্যবসায়ী, প্রবাসী পরিবার, চাকুরিজীব ও অবস্থাসম্পন্ন পরিবারের সদস্যদের নাম ও মুঠোফোন নম্বর দেওয়া হয়েছিল।

এমনকি জাতীয় পরিচয়পত্রের সাথে তালিকাভুক্তদের মুঠোফোন নম্বরের বেশ গড়মিল ছিল।  কমলগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত দেড় মাস আগে স্থানীয়ভাবে অভিযোগ উঠায় আবার চেয়ারম্যান ও সদস্যদের তালিকা, জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর ও মুঠোফোন নম্বর সংশোধনের তাগিদ দিলে জনপ্রতিনিধিরা আবারও তালিকা সংশোধন করে দিয়েছিলেন। 

সে তালিকা সংশ্লিষ্ট  মন্ত্রণালয়ে  প্রেরণের পর  জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে তদন্ত করে দেখা যায় অনেকের  দশের অধিক মুঠোফোন নম্বর রয়েছে। কোন নম্বরে মানবিক সাহায্যের টাকা প্রেরণ করা হবে তা নির্দিষ্ট করে জানতে চাওয়া হয়েছে। আবার অনেক ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বরের সাথে নিবন্ধিত কোন মুঠোফোন নেই।

এজন্য তালিকার মোট ৯ হাজারের মাঝে মাত্র ২৩৭জনকে সঠিক পাওয়া গেলে তাদের মুঠোফোন নম্বরে ২৫০০ টাকা করে প্রেরণ করা হয়েছে। এর মাঝে বাদ পড়েছেন ৮ হাজার ৭৬৩জন। কমলগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান বলেন, প্রাথমিকভাবে তালিকায় বেশ অনিয়ম থাকার কারনে জনপ্রতিনিধিদের তালিকা সংশোধন করে দিতে বলা হয় এবং তারা তা সংশোধন করে দিলে এখন দেখা যায় মুঠোফোন নম্বর নিয়ে সমস্যা রয়েছে।

তাই তালিকায় প্রদত্ত  জাতীয় পরিচয় পত্রের দেওয়া মুঠোফোন নম্বরের গড়মিল থাকায় ৮ হাজার ৭৬৩ জনের মুঠোফোনে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সাহায্যের অর্থ আসেনি। সে জন্য শনিবার (৪ জুলাই) ছুটির দিনে একটি পৌরসভাসহ ৯টি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের উপজেলা প্রকল্প বাস্কবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ে ডেকে এনে আগামী ৬ জুলাই তারিখের  মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বরে নিবন্ধিত সুনির্দিষ্ট একটি মুঠোফোন উল্লেখ করে দিতে বলা হয়েছে। 

কমলগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ে শনিবার সকালে আলাপকালে মাধবপুর ইউনিয়নের সদস্য মোতায়ের আলী ও ইসলামপুর ইউনিনয়নের সদস্য মৃণাল কান্তি সিংহ সংশোধন করে তালিকাভুক্ত হত দরিদ্রদের সঠিক মুঠোফোন নম্বর দিতে তাদেরকে বলা হয়েছে। তাই তারা ২দিনের মধ্যে আবারও তালিকাভুক্তদের মুঠোফোন সংশোধন করে দিবেন। 

কমলগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান আরও বলেন, হত দরিদ্রদের টাকা মার যাবে না। তাদের মুঠোফোন সংশোধন করে দিলেই আবার সে নম্বরে দ্রুত টাকা চলে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *