বুড়িচংয়ে হিন্দু পরিবারকে বাড়ী ছাড়ার হুমকি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার দক্ষিন গ্রামের এক মাত্র ৬ সদস্যের পরিবারের একটি হিন্দু সম্প্রদায়ের পরিবারকে স্হানীয় প্রভাব খাটিয়ে একটি চক্র ওই সম্প্রদায়ের লোক জনকে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মেরে এবং বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দেয়ার হুমকি ধমকী দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই সম্প্রদায়ের লোক জন হুমকি দাতাদের ভয়ে লুকিয়ে লুকিয়ে থাকে এবং মানবেতর জীবন যাপন করছে।
স্হানীয় সূত্রে ও ভুক্তভোগী পবিবার জানায় জেলার বুড়িচং উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়ন এর দক্ষিণ গ্রামের এক মাত্র একটি ৬ সদস্যের হিন্দু সম্প্রদায়ের কুমার পরিবার দীর্ঘদিন ধরে এলাকাবাসী মুসলমানদের সঙ্গে মিলে মিশে ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশীর মতো বস বাস করে আসছে।
সম্প্রতি ৬-৭ মাস ধরে ওই গ্রামের কিছু দুষ্ট চক্রের কুনজর পড়ে কুমার বাড়ির প্রতি। হিন্দু সম্প্রদায়ের পরিবারের উপার্জন ক্ষম ব্যক্তি তপন চন্দ্র পাল কে লক্ষ করে প্রতি চক্রের লোকজন প্রতি দিন তাদের বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি হুমকি ধমকী দিচ্ছে।
স্হানীয় সূত্র আরো জানায় তপন চন্দ্র পাল এর বাড়িতে রয়েছে প্রায় ৫ গন্ডা জমি। তপনের আয় রোজগারে চলছে তাদের পরিবার। তার রয়েছে ১১০ বছরের বৃদ্ধ দাদা,পিতা মাতা,৪ বোনের মধ্যে ৩ বোন বিয়ে দেয়া হয়। এখন তার এক মাত্র ছোট বোন ৫ম শ্রেণি পড়ুয়া।
তপন সহ গ্রামের অনেকে অভিযোগ করে বলেন দক্ষিন গ্রামের মৃত ডা. ইউনুস মিয়ার ছেলে জহিরুল ইসলাম (৪০) পাইকোঠা গ্রামের মৃত জুলফু মিয়ার ছেলে এনায়েত
ভান্ডারী তপন চন্দ্র পাল এর বাড় ঘর আত্মসাত করার লক্ষ্য পুরো পরিবারকে উচ্ছেদ করার লিপ্তে রয়েছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে কারণে অকারণে এসে
গালমন্দ করতে থাকে।এছাড়া বাড়ি ঘরে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার হুমকি ধমকী চলছে প্রতি দিন।
তপন চন্দ্র পাল জানায় তারা যে কোন সময় আমাদের উপর হামলা চালিয়ে বিরাট ক্ষতি করতে পারে।তাই গ্রামের মাতাব্বর,সর্দার, মেম্বার ও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম মোস্তফা কে জানানো হয়েছে। কিন্তু কাউকে তারা তোয়াক্কা করছেন না।
এদিকে ইউপি সদস্য মোঃ শাহীন হোসেন সহ আরো অনেক বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তারা জানান ওই চক্রটি খুবই খারাপ তারা গ্রামের কাউকে মানছে না।এই পরিবারটি এখন খুবই নিরাপত্তা হীনতায় রয়েছে।
অপর দিকে গত মঙ্গলবার খবর পেয়ে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির বুড়িচং উপজেলা শাখার সভাপতি গনেষ ভট্টাচার্য্য ও সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন খান নির্যাতিত পরিবারের পাশে দাড়িয়েছেন। তারা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ ঘৃণা জানিয়েছেন। দ্রুত বিষয়টি সমাধানের জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সহ যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Top