দূরের গ্রহাণু থেকে মাটি নিয়ে সফল ভাবে ফিরল জাপানি মহাকাশযান

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

চাঁদ থেকে মাটি আনার ৫১ বছর পর প্রথমবার কোনো গ্রহাণু থেকে মাটি নিয়ে পৃথিবীতে ফিরল জাপান স্পেস এজেন্সির মহাকাশযান হায়াবুসা-২।

শনিবার ভোররাতে ৩ কোটি কিলোমিটার দূরের কোনো গ্রহাণু (‘অ্যাস্টারয়েড’) থেকে মাটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বুকে নামে মহাকাশযানটি।

হায়াবুসা-২ টুইটারে তাদের এই সফলতার খবর জানিয়েছে। মিশন সম্পর্কে আরো তথ্য তারা জানাবে বলে সিএনএন জানিয়েছে।

২০১৪ সালের ৩ ডিসেম্বর যাত্রা শুরু করে হায়াবুসা-২। এটি ২০১৮ সালের জুনে মঙ্গল আর বৃহস্পতির মাঝখানে থাকা গ্রহাণুপুঞ্জের (অ্যাস্টারয়েড বেল্ট) সদস্য গ্রহাণু ‘রিউগু’তে পৌঁছায়।

মহাকাশযানটি ২০১৯ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি সেখান থেকে একটি নমুনা সংগ্রহ করে। এরপর কপার বুলেটের সাহায্যে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ৩৩ ফুট গর্ত তৈরি করে। সেই গর্ত থেকে ২০১৯ সালের ১১ জুলাই নমুনা সংগ্রহ করে হায়াবুসা-২।

নমুনা সংগ্রহের পর ওই বছরের নভেম্বরে যাত্রা শুরু করে আজ সফলভাবে অবতরণ করে মহাকাশযানটি। অভিযানের গবেষক দল বলেন, ‘এক গ্রাম নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এক গ্রাম শুনতে কম মনে হতে পারে। তবে আমাদের প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে এটুকুই যথেষ্ট।’

বিশ্বে প্রথম এই কৃতিত্বের জন্য জাপানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে নাসা। হায়াবুসা-২ এর এই গ্রহাণু বিজয়কে নাসা বলেছে ‘একটি ঐতিহাসিক ঘটনা’। গত ২০ অক্টোবর আরো একটি গ্রহাণু ‘বেন্নু’কে খুঁড়েও তার মাটি উপড়ে নিতে সফল হয়েছে নাসার পাঠানো মহাকাশযান ‘ওসিরিস-রেক্স’। যার পৃথিবীতে ফেরার কথা ২০২৩ সালের শেষ দিকে।

নাসা জানায়, জাপানের হায়াবুসা-২ এবং নাসার ওসিরিস-রেক্স-এর কৃতিত্ব এটাই, কোনো দুর্ঘটনা ছাড়াই তারা নামতে পেরেছে গ্রহাণুতে। তার বুকে খননকাজও সারতে পেরেছে নিরাপদে।

হায়াবুসা-২ এর নাম ইতিহাস হয়ে থাকবে। প্রথম এই জাপানি মহাকাশযানের দৌলতেই গ্রহাণুকে খুঁড়ে উপড়ে আনা মাটি পৃথিবীতে আনতে পারল গবেষণার জন্য। যা আগামী দিনে কোনো গ্রহাণুতে কী কী খনিজ পদার্থ রয়েছে, সেগুলো আমাদের জন্য কতটা জরুরি তা বুঝতে সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *