ব্যাপক আয়োজনে হিন্দু মহাজোট এর জন্মাষ্টমী পালন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ভগবান শ্রী কৃষ্ণের শুভ আবির্ভাব তিথি উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের উদ্যোগে আজ ব্যপক কর্মসূচী গ্রহণ করে। সকাল ৭টায় কৃষ্ণপুজা, ৯ টায় আলোচনা সভা এবং বিকাল ২ টায় এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ঢাকার রমনাকালি মন্দিরের গেট থেকে শুরু হয়ে পলাশী মোড় হয়ে ঢাকার বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিন করে ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্কে গিয়ে শেষ হয়।


সকালে হিন্দু মহাজোটের সহসভাপতি প্রদীপ পালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব অ্যাডভোকেট গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক, নির্বাহী সভাপতি অ্যাডঃ দিনবন্ধু রায়,সিনিয়র সহ সভাপতি ডাঃ এম.কে রায়, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ প্রতীভা বাকচী, যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডঃ লাকি বাছার, প্রধান সমন্বয়কারী বিজয় কৃষ্ণ ভট্টাচার্য,রিপন দে,ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সুমন সরকার,বিজন সানা,সাগরিকা মন্ডল, ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল ঘোষ, ঢাকা জেলার সভাপতি এ্যাড:উজ্জল, সাধারন সম্পাদক গোপাল পাল, যুব মহাজোটের প্রধান সমন্বয়কারী প্রশান্ত হালদার,সুমন হালদার,নিউটন পন্ডিত,জীবন রায়,ছাত্র মহাজোটের সভাপতি সাজেন কৃষ্ণ বল,সাধারন সম্পাদক হরেকৃষ্ণ বারুরী,প্রচার সম্পাদক প্রসেনজীত মধু,দপ্তর সম্পাদক তপু কুন্ড, প্রমূখ।
সভায় বক্তাগণ বলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালন করে তিনি এর উপযোগীতা সম্পর্কে বিশ্ববাসীকে সচেতনাতা সৃষ্টি করেছেন। দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালন এর প্রেরনা সৃষ্টিই আজকের দিনের তাৎপর্য। আজ সারা পৃথিবীতেই সন্ত্রাসবাদের বিস্তার ঘটেছে। মানুষের জীবন এবং সম্পদ এখন নিরাপদ নয়। এমতাবস্থায় ভগবান শ্রীকৃষ্ণের বাণী মানুষের মধ্যে সৌহার্দ ও সহমর্মিতা সৃষ্টিতে ব্যপক ভূমিকা রাখছে। বক্তাগন আরো বলেন বিভিন্ন সময় হিন্দু সম্প্রায় নির্যাতিত হলেও জাতীয় সংসদ হিন্দু সম্প্রদায়ের সমস্যা সমাধানে কোন ভূমিকা রাখে নাই। সেজন্য হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করার জন্য জাতীয় সংসদে ৫০ টি আসন সংরক্ষন ও পৃথক নির্বাচন পদ্ধতি পূণঃ প্রতিষ্ঠা, সংখ্যালঘু বিষয়ক একটি মন্ত্রনালয় প্রতিষ্ঠা এবং আসন্ন দূর্গা পুজার দূর্গা পুজায় ৩ দিনের সরকারী ছুটি ঘোষণা করে সংবিধানে বর্ণিত সম অধিকার ও সম মর্যাদা নিশ্চিত করার দাবী জানান।

বক্তাগণ শোভাযাত্রায় ব্যপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও সার্বিক সহযোগীতা করার জন্য সরকার, পুলিশ প্রশাসন সহ প্রশাসনের সকল সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *