নড়াইলে বাস চালক লিয়াকত হত্যা মামলার প্রধান আসামি চেয়ারম্যান পলাশ গ্রেফতার

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল থেকে:-


নড়াইল সদর উপজেলার আউড়িয়া ইউনিয়নের সীমাখালি গ্রামের বাস চালক লিয়াকত সিকদার (৫০) হত্যা মামলার প্রধান আসামি পলাশ মোল্লাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পলাশ মোল্যা সদর উপজেলার আউড়িয়াইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান  চেয়ারম্যান। পুলিশ ও এলাকাবাসি জানান, এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পলাশ মোল্লার সঙ্গে লিয়াকত সিকদারের দীর্ঘদিন যাবত দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলে আসছিল।

এরই জের ধরে ২৮ আগষ্ট রাত ৯টার দিকে লিয়াকত সিকদারকে কুপিয়ে হত্যা  করে কালনা-খুলনা ভায়া নড়াইল সড়কের সীমাখালি এলাকার নবীর শেখের বাড়ির রাস্তার পাশের খাদে ফেলে দেওয়া হয়।

পুলিশ সেখান থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনার পর পরই পলাশ চেয়ারম্যান ও তাঁর সঙ্গীরা গা ঢাকা দেন। এ ঘটনায় লিয়াকত সিকদারের স্ত্রী আসমা বেগম চেয়ারম্যান পলাশ মোল্লাকে প্রধান আসামি করে সদর থানায় মামলা করেন।

মামলায় ১৭ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫ জনকে আসামি করা হয়। পুলিশ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি সীমাখালি গ্রামের তবিবর সিকদারের ছেলে নাছিম সিকদার (২৩)কে আটক করে।

নাছিম সিকদার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রশাসনের একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, চেয়ারম্যান পলাশ মোল্লাকে গ্রেপ্তারে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঢাকার একটি স্থান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

কিন্তু কবে, কখন গ্রেপ্তার করা হয়েছে মামলার তদন্তের স্বার্থে কেউ মুখ খুলতে রাজি হননি। পলাশ মোল্লাকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি গতকাল (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে প্রকাশ পায়। aপুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় পিপি এম (বার) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। 


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *