গোপালগঞ্জে দুইশত হিন্দু পরিবারকে উচ্ছেদের চক্রান্তের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

গোপালগঞ্জে ভুয়া সোলেনামা দ্বারা দুইশত হিন্দু পরিবারকে উচ্ছেদের চক্রান্তের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। বুধবার দুপুর ১২টায় প্রেসক্লাবের সামনে সদর উপজেলার কুয়াডাঙ্গা ও কারারগাতী এলাকাবাসী এ মানববন্ধন করে। মানবন্ধনে ভুক্তভোগীরা বলেন, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কুয়াডাঙ্গা ও কাড়ারগাতী এলাকা একটি হিন্দু অধ্যুষিত এলাকা। শত শত বছর ধরে তারা পূর্ব পুরুষ থেকে ওই এলাকায় বসবাস করে আসছে।

স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর ওই এলাকার চিহ্নিত ভুমি দস্যূ সাবু চৌধূরী গং ও সফিউল ইসলাম মোল্লা ১২২২/১৯৪৮ নং খাজনা মামলা ও ১৯৬২ সালের জাল সোলেনামার ভয় দেখিয়ে কুয়াডাঙ্গা ও কাড়ারগাতী গ্রামের ২৩টি হিন্দু পরিবারের ভুমি ৭একর ৭৭ শতাংশ সম্পত্তি পরোক্ষ ভাবে ২০০টি হিন্দু পরিবারের ভুমি ও বসতবাড়ী জোর করে প্রভাবশালীদের নিকট বিক্রি করে সাইনবোর্ড টানিয়ে, ঘরবাড়ী নির্মান করে ও সালিশী বসিয়ে বিরাট অংকের টাকা চাঁদা দাবী করছে। চাঁদা দিতে না পারলে রাতের অন্ধকারে ওই চক্রটি স্থানীয় দালালদের সাথে নিয়ে দিনের পর দিন তাদের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাচ্ছে।

এমনকি তাদেরকে ভারতে পাঠিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে। এরআগে গ্রামবাসীর পক্ষে থেকে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে এ ব্যাপারে লিখিতভাবে জানান হয়। মানববন্ধনে এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, দূর্গাপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আকবর আলী ফরাজী, জেলা যুবলীগের সভাপতি জি এম সাহাবুদ্দিন আজম, পৌর কাউন্সিলর আলিমুজ্জামান বিটু, প্রমূখ। বক্তারা ভূমিদস্যু সাবু চৌধুরী গংদের গেস্খফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Top